নাটোর -০২ আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের ভাগ্নে এবং নাটোর পৌর স্বেচ্ছা সেবকলীগ নেতা নাফিউল ইসলাম মুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে এলাকাবাসী।

নাটোর পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড এলাকাবাসীর ব্যনারে বুধবার দুপুরে নাটোর শহরের একটি রেষ্টুরেন্টে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিতবক্তব্যে বলা হয়, গত ২৪ মে বিকেলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু রায়হান অফিসে ডেকে মীর অমিরুল ইসলাম জাহানের কাছে ঘুষ দাবী করে, তিনি দিতে অসম্মতি জানালে নির্বাহী প্রকৌশলী জাহানের গাঁয়ে ফাইল ছুঁড়ে মারে এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে, সন্তান শুধু ঘটনার জোড়ালো প্রতিবাদ করে, তাকে মারপিট বা লাঞ্চিত করা বা সরকারী কাজে বাঁধা প্রদানের কোন ঘটনা ঘটেনি।

তিনি উত্তোজিত অবস্থায় চেয়ার থেকে পরে আহত হোন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু রায়হান নাটোরে আসার পর থেকে পুরো অফিসকে জিম্মি করে পছন্দের ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দিতে কমিশন বাণিজ্য, নিন্ম দরের দরপত্র আহবান করে উচ্চ দরে কার্যাদেশ দেওয়া, কাজ না করে বিল উত্তোলন এবং পছন্দের ঠিকাদারদের যোগসাজশে সরকারি অর্থ ভাগবাটোয়ারার শুরু করে। নিন্ম দরের কাজ উচ্চ দরে করার আদেশ দিলে এ সংক্রান্ত সভা করার নিয়ম থাকলেও তিনি তা কখনো করেননি। এতে সরকারি কোষাগারের বিপুল অর্থ গচ্চা গেছে।

প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ নতুন নয়। এসব অভিযোগ অস্বীকার করে প্রকৌশলী আবু রায়হান বলেন, এ সকল অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। নিজেদের অপরাধ ঢাকতে ও কর্মক্ষেত্রে তাঁর সুনাম হানীর জন্য মিথ্যা ও বানোয়াট প্রচারনা চালানো হচ্ছে।