ভোলার চরফ্যাসন উপজেলায় জমিতে ধানের বীজবপন করার সময় ভূমিদস্যুর হামলায় কান হারালেন বরগা চাষি মজিদ চৌকিদারের ছেলে হাসান। আজ শনিবার (৩জুলাই) সকাল ১১ টার সময় দক্ষিণ আইচা থানার চরকচ্ছপিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বরগা চাষি মজিদ চৌকিদার এর ছেলে শাহেআলম জানান,ভোলার চর নাংলাপাতা এলাকার জনৈক ব্যক্তির আমাদের বাড়ির পাশের জমি আমার পিতা দীর্ঘ বছর যাবৎ বরগা চাষি হিসেবে চাষাবাদ করে আসছেন। প্রতিবছরের মতো চাষ শেষে বীজবপন করতে আলাউদ্দিন চৌকিদার এর নেতৃত্বে শফিউল্লাহ শফু, তুহিন (ওরফে) হিরন, রাকিব, শরিফ, মোছলেউদ্দিন, নাছিমা রড দা লাঠি শোটা নিয়া অতর্কিত হামলা চালিয়ে হাসানও তার পিতা মজিদ চৌকিদারকে পিটিয়ে আহত করে হাসানের কান কামড়ে নিয়ে যায় শফু। এ সময় হাসানের ডাক চিৎকারে সোলেমান, লোকমান, ইউসুফ ঘটনা স্থলে গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে, চরফ্যাসন ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এলাকা সূত্রে জানা গেছে, উক্ত জমি আলাউদ্দিন বাহিনী বন্দোবস্ত সূত্রে দাবী করলে বরগা চাষির মালিক সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে চরফ্যাসনে আবেদনের প্রেক্ষিতে আলাউদ্দিন গং উক্ত জমি নিদাবী দিয়ে বলেন, কে বা কারা এই জমি তার নামে বন্দোবস্ত নিয়েছেন তা তিনি জানেন না।

এ ব্যাপারে আলাউদ্দিন চৌকিদার এর সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, পৈতৃক সম্পত্তি নিয়া পরিকল্পিত ভাবে এঘটনা ঘটিয়েছে। দক্ষিণ আইচা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) হারুন অর রশীদ জানান, আহতদেরকে চিকিৎসা  নেয়ার জন্য হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে, অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

চরফ্যাসন ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার শোভন  বশাক জানান,এখন পর্যন্ত জরুরী বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছে।