পাবলিক পরীক্ষায় কাম্য ফল অর্জন করতে না পারায় ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার বাদুরতলা দাখিল মাদরাসার এমপিও স্থগিত করেছে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর।

মাদরাসাটি কোন বছরই কাম্য সংখ্যক শিক্ষার্থী ভর্তি বা কাম্য ফল অর্জন করতে পারেনি। ইতোমধ্যে মাদরাসাটির একাডেমিক স্বীকৃতি বাতিল করেছে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড। তাই, মাদরাসাটি এমপিও স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। চলতি এপ্রিল মাস থেকেই মাদরাসাটির এমপিও স্থগিত করা হয়েছে বলে শিক্ষা টাইমসকে নিশিত করেছে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র।

সূত্র জানায়, গত ৪ এপ্রিল মাদরাসাটির এমপিও স্থগিত করার নির্দেশনা দিয়ে অধিদপ্তরের চিঠি পাঠিয়ে ছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ।

মন্ত্রণালয়ে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার বাদুরতলা দাখিল মাদরাসা দাখিল স্তরের একাডেমিক স্বীকৃতি বাতিল করায় এবং কোন বছরই কাম্য শিক্ষার্থী ও ফল অর্জন না করায় সংশোধিত এমপিও নীতিমালা অনুসারে মাদরাসাটির এমপিও স্থগিত করে বাতিলের  বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে বিভাগকে জানাতে বলা হল।

অধিদপ্তর সূত্র আরও জানায়, গত ১৩ এপ্রিল মাদরাসাটির এমপিও স্থগিত করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে মেমিসের পরিচালককে।

উক্ত মাদরাসার সরেজমিনে গিয়ে শিক্ষা টাইমস প্রতিনিধি জানায় মাদরাসাটির অবকাঠামো মোটামুটি আছে। অথচ ছাত্র/ছাত্রী আছে কিনা জানতে চাইলে এলাকার গণ্যমান্য লোকজন বলে আমরা কোনো দিন দেখেনি এই প্রতিষ্ঠানে রিতিমতো ক্লাস চলছে। কোনো দিন দেখি নাই জেডিসি এবং দাখিল পরীক্ষায় ২/৩ জনের বেশি অংশগ্রহণ করতে পারছেন কিনা জানা নাই।

এলাকাবাসী সূত্রে আরো জানা যায় তারা বলছে এরকম মাদরাসা সরকার বন্ধ করে দিয়েছে ভলোই করেছে। একরম মাদরাসা থাকলে পার্শ্ববর্তী প্রতিষ্ঠানেরও ক্ষতি হয়।