শীতালক্ষ্যায় লঞ্চ ডুবিতে প্রাণ গেল জিবু আক্তার (১০) নামে এক স্কুল ছাত্রীর। জিবু কাঠালিয়া উপজেলার দক্ষিণ চেঁচরী গ্রামের মো. তোফাজ্জেল হাওলাদারের মেয়ে ও ৭৪ নং দক্ষিণ পূর্ব চেঁচরী জমাদ্দার হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, জিবুর বড় বোন লিপি নারায়নগঞ্জে ও অপর এক বোন তামান্না মুন্সীগঞ্জে থাকে। কিছু দিন পূর্বে জিবু তার বড় বোন লিপির সাথে নারায়নগঞ্জের বাসায় বেড়াতে যায়। লকডাউনের কথা শুনে লিপির বোন তামান্না ও দুলাভাই খাইরুলের সাথে রোববার নারায়নগঞ্জ থেকে সাবিত আল হাসান লঞ্চে মুন্সীগঞ্জে যাচ্ছিল। পরে লঞ্চটি দুর্ঘটনার কবলে পরে তলিয়ে যায়।

বোন তামান্না ও দুলাভাই খাইরুল আহত অবস্থায় সাঁতরে তীরে আসতে সাক্ষম হলেও নিখোঁজ থাকে জিবু। পরে তামান্না ও খাইরুল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার লঞ্চটি উদ্ধার করা হলে লঞ্চের ভিতর থেকে জিবুর নিথরদেহ বেড় করে আনা হয়। এ ঘটনায় জিবুর বাড়িতে চলছে শোকের মাতম।