ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার আউখিরা গ্রামের মৃত ছোবাহান শরীর এর পুত্র মোঃ পনির শরীফ (৩৬) তার বিরুদ্ধে সি আর ১৮৭/২০ মামলা করেন রাজাপুর উপজেলার উত্তর তারাবুনিয়া গ্রামের মোঃ ফরিদ হোসেন আকন। মামলার বাদী ফরিদ আকন অভিযোগ করেন তাকে প্রবাসে নিয়ে ভালো ভিসা দেওয়ার কথা থাকলেও পনির শরীফ ভাালো ভিসা দেননি। পনির হোসেনকে আসামী করে প্রবাসীকর্ম সংস্থান ২০১৩ আইনের ৩১ ক, খ এবং ৩২ এর ক ধারায় অভিযুক্ত করে মামলা করা হয়।

বাদীর পরিবারেকে ভুল বুজিয়ে বাদীকে বিদেশে নেওয়া হয়। বিদেশে নেওয়ার পূর্বে নানা ধরনের সুযোগ সুবিধা দেওয়ার কথা বলেন পনির শরীফ। বিদেশে গিয়ে ফরিদ হোসেন জানতে পারে তিনি প্রতারিত হচ্ছেন। পনির হোসেন প্রবাসে থাকা অবস্থায় তার কাছ থেকে ভিবিন্ন সময়ে মোট ছয় লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ করেন ফরিদ। 

প্রতারনার বিষয় জানার জন্য পনির শরীফ এর সাথে যোগাযোগ করার জন্য তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে একাধিক রার ফোন দিয়ে তার সাথে যোগাযোগের করার চেষ্টা হলে মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তার বাড়িতে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। প্রতারনার মামলার বিষয় তার কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

মামলার বাদী উক্ত ছয় লাখ টাকসহ ক্ষতি পূরণ দাবি করেন। মামলার বাদী বলেন তিনি জীবনের সঞ্চিত সব অর্থ শেষ করে এখন নিঃস্ব জীবনজাপান করছেন। ফরিদ হোসেন কোন উপায় না পেয়ে প্রবাস থেকে চলে আসেন। এখন প্রায় মানষিক ভারসাম্যহীন হয়ে গেছে।