নীলফামারীর জলঢাকায় এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাতে পৌর এলাকার মোলাংগারী নদীরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত বৃদ্ধের নাম হাফিজুল ইসলাম (৫৫)। সে পৌরসভার মৃত তালেব উদ্দিনের ছেলে বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক নারীসহ ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। এরা হলেন রুবেল হোসেন (২৭), মেরাজুল ইসলাম (২০), মিশু মিয়া (২৫) এবং পারভীন আক্তার (২৮)। আটককৃত পারভীন ওই এলাকার রুবেলের স্ত্রী। নিহত হাফিজুল ইসলাম স্থানীয় জাহান অটোরাইচ মিলস এর ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ছিল। স্থানীয় ও নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে জানা যায়, একটি দোকানঘর ক্রয়-বিক্রয়কে কেন্দ্র করে এ হত্যাকান্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা করছেন তারা। তারা আরও জানায়, ঘটনার দিন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথায় এবং গলায় আঘাত করে তাকে নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয়।

জলঢাকা থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, লাশটি ময়না তদন্তের জন্য নীলফামারী মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও মামলা দায়ের হয়নি। এছাড়াও নিহত হাফিজুল ইসলামের লাশের পাশ থেকে নগদ অর্থ ২ লক্ষ ৮৫ হাজার ৩০৯ টাকা ও ২টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করতে পুলিশের কয়েকটি টিম কাজ করছে।

আশা করি দ্রæত সময় এর রহস্য উদঘাটন করতে পারবো। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছিল।