নীলফামারীর জলঢাকায় প্রাক্তন স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী মনিরা সুলতানাকে অপহরণ করে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ এনে থানায় মামলা করেছে বর্তমান স্বামী সেলিমুর রেজা।

সোমবার রাতে মনিরার প্রাক্তন স্বামী মোরশেদুর রহমান মিনারসহ ৬ জনকে আসামী করে জলঢাকা থানায় স্ত্রী অপহরনের মামরা দায়ের করেন তিনি। অভিযুক্ত মোরশেদুর রহমান মিনার কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার মহশিন আলীর ছেলে। মনিরা সুলতানা জলঢাকা উপজেলায় ব্র্যাক কর্মসূচী সংগঠক হিসেবে কর্মরত। মঙ্গলবার বিকেলে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন জলঢাকা থানার ওসি (তদন্ত) ফজলুল হক।

অভিযোগে জানা যায়, মনিরা সুলতানার ১০ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল মোরশেদুর রহমান মিনারের সাথে। সংসার জীবনে বনিবনা না হওয়ায় ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে তাদের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। পরবর্তীতে ২০২১ সালের ফেব্রæয়ারি মনিরা সুলতানাকে বিবাহ করেন মামলার বাদী সেলিমুর রেজা। সেলিমুর রেজার বাড়ী বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ থানায়, তার বাবার নাম মৃত শাহজাহান আলী। বর্তমানে তিনি নীলফামারী সদরের কাজিরহাট ব্র্যাক অফিসে কর্মসূচী সংগঠক হিসেবে কর্মরত আছে।

অভিযোগে আরও জানা যায়, বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকে প্রাক্তন স্বামী মোরশেদুর রহমান মিনার মনিরাকে উত্যক্ত করায় এর আগেও অভিযুক্ত মিনারের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডাইরী করা হয়েছিল বলে উল্লেখ করা হয় অভিযোগে। ঘটনার দিন সোমবার সকালে মনিরা সুলতানা ব্র্যাক অফিস জলঢাকার বগুলাগাড়ী হইতে চার্জার ভ্যানযোগে আমরুলবাড়ী এলাকায় কিস্তি আদায়ের লক্ষে যাওয়ার পথে আমরুলবাড়ী নামক এলাকায় মনিরা সুলতানার পথরোধ করে তার প্রাক্তন স্বামী মিনার। পরে তাকে টানাহেচরা করে মাইক্রোযোগে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, প্রাক্তন স্বামীর বিরুদ্ধে জোরপূর্বক মনিরা সুলতানাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি আমলে নিয়ে আমরা কাজ করছি। আসামী ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ বিষয়ে মুঠোফোনে মামলার বাদী সেলিমুর রেজার সাথে কথা হলে তিনি জানান, অভিযোগ দেয়া হয়েছে আইনি প্রক্রিয়ার অপেক্ষায় আছি।